ঢাকা মঙ্গলবার, ২৯শে সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ই আশ্বিন ১৪২৭


পূর্ব লাদাখে সেনা সরানো নিয়ে ভারত ও চীন একমত


প্রকাশিত:
২৪ জুন ২০২০ ০৯:২৬

আপডেট:
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৬:১৫

পূর্ব লাদাখে বিরোধের জায়গা থেকে সেনা সরানোর ব্যাপারে একমত হলো ভারত ও চীন। ১১ ঘণ্টা ধরে লেফটানান্ট জেনারেল পর্যায়ে আলোচনার পর দুই দেশ এই মতৈক্যে পৌঁছেছে বলে ভারতীয় সেনা দাবি করেছে।

কীভাবে সেনা সরানোর কাজ হবে, তা ঠিক করতে আবার আলোচনায় বসবে দুই দেশ। ভারতীয় সেনার তরফে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, ''আলোচনা ইতিবাচক, গঠনমূলক ও সৌহার্দ্যপূর্ণ হয়েছে। সেনা সরানোর ব্যাপারে দুই পক্ষ একমত হয়েছে। পূর্ব লাদাখের সব বিবাদিত এলাকা থেকে সেনা সরবে। কীভাবে সেনা সরানো হবে, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এই আলোচনা চলবে।'' ভারতের তরফ থেকে চীনকে আরেকটি কথা জানানো হয়েছে, সেনা সরানোর সময় যেন গালওয়ানের মতো ঘটনা না ঘটে।

সূত্র জানাচ্ছে, আলোচনায় ঠিক হয়েছে, গালওয়ান, প্যাংগং সো এবং ফিঙ্গার পয়েন্ট ৫ থেকে ৮ পর্যন্ত এলাকায় সেনা সরানো হবে। এর আগে গত ৬ জুন গালওয়ানে সেনা সরানো নিয়ে মতৈক্য হয়েছিল। এ বার অন্য দুইটি বিতর্কিত এলাকা থেকেও সেনা সরানো নিয়ে মতৈক্য হলো বলে সূত্রের খবর। স্বাভাবিকভাবেই সেনা কর্তারা খুশি। 

সেনা সূত্র জানাচ্ছে, সোমবার সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ পূর্ব লাদাখের চীনের এলাকা চুশুল সেক্টরের মলডোতে আলোচনা শুরু হয়। আলোচনা শেষ হয় রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ। সেনা সরানোর বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হওয়ায় এত দেরি হয়েছে। ভারতের তরফ থেকে চীনকে এও জানানো হয়েছে যে, সরকারি সিদ্ধান্ত হলো, প্রয়োজন হলে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় গুলি চালাতে দ্বিধা করবে না ভারতীয় সেনা।

তবে এ বার ভারতীয় পক্ষ যথেষ্ট সতর্ক। কারণ, গত ৬ জুনের বৈঠকেও সেনা সরানো নিয়ে মতৈক্য হয়েছিল। কিন্তু তারপর গালওয়ানে সংঘর্ষ হলো। তাই এ বার দুই পক্ষের মধ্যে আরও আলোচনা হবে।


বিষয়:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top